ঘোড়াঘাট উপজেলা

Ghoraghat-Upazila-map-bn.jpg
ঘোড়াঘাট উপজেলা

ঘোড়াঘাট নামটি প্রথম পাওয়া যায় মাহমুদ শাহী বংশের সুলতান বরবক শাহের রাজত্বকালে (১৪৫৯-৭৬) খ্রিঃ ।৩ আবার সুলতান নশরত শাহর আমলে নশরতাবাদ নামেও পরিচিত ছিল। কিন্তু মোগল আমলে তা পরিবর্তন হয়ে ঘোড়াঘাট নামে খ্যাত হয়। আইন-ই- আকবরীতে ঘোড়াঘাট নামটিই বার বার উলেস্নখিত হয়েছে। মধ্যযুগের প্রসিদ্ধ কবি কবি হেয়াত মামুদ ও সাকের মামুদ এর পুঁথিতে ঘোড়াঘাট নামটি ব্যবহৃত হয়েছে। বর্তমানেও ঐ নামটি ব্যবহার হচ্ছে। খুব সম্ভব মধ্যযুগের প্রথমার্ধ থেকেই ঘোড়াঘাট নামের প্রচলন শুরম্ন হয়।
উলেস্নখ্য, মধ্যযুগে এখানকার দূর্গে অনেক ঘোড়া ছিল। ঘোড়াগুলোকে নিয়মিত গোসল করানো হতো করতোয়া ঘাটে। তা থেকেই এ স্থানের নাম ঘোড়াঘাট হয়েছে। পরবর্তীকালে পর্যায়ক্রমে পরগণা বেরি ঘোড়াঘাট , কুঞ্জ ঘোড়াঘাট, সরকার ঘোড়াঘাট, জেলা ঘোড়াঘাট ও থানা ঘোড়াঘাট ইত্যাদি নামে প্রসিদ্ধ লাভ করে। তবে সাধারণ মানুষ শুধু ঘোড়াঘাট বলেই জানে। উলেস্নখ্য উপজেলার দক্ষিণে ঘোড়াঘাট নামে একটি মৌজা আছে যার পরিচয়ে ইউনিয়নের নাম, উপজেলার নাম ও পৌরসভার নামকরণ করা হয়েছে।

ইতিহাস ও অপারপর সুত্র থেকে ঘোড়াঘাটের নামকরণ প্রসঙ্গে নিন্মরম্নপ তথ্য পাওয়া যায়।
1. প্রাচীনকালে মৎস্যদেশের অধিপতি বৈরাট রাজার ঘোড়ার আস্থাবল ছিল এখানে। ঘোড়ার আস্থাবল থেকেই স্থানটির নাম ঘোড়াঘাট হয়েছে।
2. আর এক বর্ণনা মতে কামত্মনগর ও ঘোড়াঘাটে মৎস্যদেশের অধিপতি বৈরাট রাজার দুটি দূর্গ চিল। কামত্মনগরের দুর্গটি গো-পালন হেতু এবং ঘোড়াঘাট দুর্গটি ঘোড়া রক্ষার্থে ব্যবহৃত হতো। ঘোড়া রক্ষার্থে এ স্থান ব্যবহৃত হতো বলে এর নাম ঘোড়াঘাট হয়েছে।১
3. অতীতে ভূটানের টাঙ্গন ঘোড়া বিক্রির উদ্দেশ্যে করতোয়া নদীর ঘাট দিয়ে পার করে রাজা বিরাটের মেলায় নেওয়া হতো। তাই ঘোড়া পারাপারের স্থানটি ঘোড়াঘাট নামে খ্যাত হয়। এক সময় অশ্বঘটা নামেও এ জায়গার পরিচয় ছিল। অশ্ব মানে ঘোড়া আর ঘট্টা মানে ঘাট। এ থেকেই ঘোড়াঘাট নামকরণের প্রচলন ঘটে।
4. স্থানীয় জনশ্রম্নতি থেকে জানা যায় , মহাভারতীয় যুগে কৌরবদের সাথে পান্ডবগণ বাজিতে হেরে গিয়ে এখানে আশ্রয় নিয়েছিলেন বলে এ জায়গার নাম বাজিহট্ট হয়েছে।
5. সুলতানী আমলে শাহ ইসমাইল গাজী ঘোড়াঘাট দূর্গাধিপতি ভান্দুসী রায়কে জব্দ করার জন্য একদল যোদ্ধা প্রেরন করেন। যোদ্ধারা তাদের ঘোড়াগুলিকে করতোয়ার নদীর ঘাটে গোসল করিয়ে দূর্গ আক্রমণ করেন ২। সেই থেকে এই স্থান ঘোড়াঘাট নামে খ্যাত হয়।